Banner
কবি – জাহিদুজ্জামান (কবিতা)

লিখেছেনঃ জাহিদুজ্জামান, আপডেটঃ August 21, 2009, 6:00 PM, Hits: 5748

কবি – জাহিদুজ্জামান (কবিতা)
 
যারা ভাষা বোঝে না
যারা কথার মানে বোঝে না,
বোঝে না ছন্দ ভাব প্রীতি
যারা শুধু খেতে জানে আর
কোনরকম বেঁচে থাকে
তারাই পরাল আমাকে হাতকড়া।
 
ভোররাত্রি এল দু’জন প্রহরী
দরজার কড়া নাড়ার শব্দে বলে দিলো
ভদ্রতার ব্যাপারে তারা কত আনাড়ী।
রক্ত চোখে তাকিয়ে বললো তুমি কবি?
ব্যাস পরালো হ্যানকাফ, নিয়ে গেলো জিপে,
দরজা খুলো ঢোকালো আমায়,
যেন সকল ধ্বংসের পাত্র আমি।
সেখানে রয়েছে আরো কবি।
কারো পায়ে জুতো নেই, কারো গায়ে শুধু স্যাণ্ডো গেঞ্জি
যেখানে যে অবস্থায় যাকে পেয়েছে নিয়েছে তুলে।
চিৎকার করে বলি হয়েছে কি-তা শুনি?
সবাই চুপচাপ, ভাষাহীন বসে আছে যেন খোদাই করা পাথর
রাত্রির নীরবতা যেন চারিদিকে আটকে ধরেছে।
পাংশুটে কুকুর কোথাও বিবাদে মেতেছে
এমনই মাতে আমাদের পাড়ার কুকুরগুলো মাঝরাতে
অকস্মাৎ একটা ট্রাক দানবের মত ছুটে এলো
মনে হলো ভেঙ্গে চুরে নিয়ে যাবে সবকিছু
আবার চুপচাপ চারিদিক
যেন পাতালপুরির ভিতর বসবাস,
অতি পরিচিত পৃথিবীটা নয়।
কলেমা জানো? কেউ একজন ব্যঙ্গোক্তি করল।
কেন এত রাতে কলেমা পড়বো কেন?
আজ ভোরে তোমার ফাঁসি
কেন কি করেছি আমি? কোন কারণে আমার ফাঁসি?
কারণ তুমি কবি!
মা জেগে উঠেছে থেমে থেমে কাশির শব্দ আসছে
গড়গড় শব্দে গাড়ি নড়ে উঠলো
ভোর হতে বেশী নাই দেরী।
 
১২-০৮-০৯
 
অনলাইনঃ ২২ আগস্ট, ২০০৯
 
 
যারা ভাষা বোঝে না
যারা কথার মানে বোঝে না,
বোঝে না ছন্দ ভাব প্রীতি
যারা শুধু খেতে জানে আর
কোনরকম বেঁচে থাকে
তারাই পরাল আমাকে হাতকড়া।
 
ভোররাত্রি এল দু’জন প্রহরী
দরজার কড়া নাড়ার শব্দে বলে দিলো
ভদ্রতার ব্যাপারে তারা কত আনাড়ী।
রক্ত চোখে তাকিয়ে বললো তুমি কবি?
ব্যাস পরালো হ্যানকাফ, নিয়ে গেলো জিপে,
দরজা খুলো ঢোকালো আমায়,
যেন সকল ধ্বংসের পাত্র আমি।
সেখানে রয়েছে আরো কবি।
কারো পায়ে জুতো নেই, কারো গায়ে শুধু স্যাণ্ডো গেঞ্জি
যেখানে যে অবস্থায় যাকে পেয়েছে নিয়েছে তুলে।
চিৎকার করে বলি হয়েছে কি-তা শুনি?
সবাই চুপচাপ, ভাষাহীন বসে আছে যেন খোদাই করা পাথর
রাত্রির নীরবতা যেন চারিদিকে আটকে ধরেছে।
পাংশুটে কুকুর কোথাও বিবাদে মেতেছে
এমনই মাতে আমাদের পাড়ার কুকুরগুলো মাঝরাতে
অকস্মাৎ একটা ট্রাক দানবের মত ছুটে এলো
মনে হলো ভেঙ্গে চুরে নিয়ে যাবে সবকিছু
আবার চুপচাপ চারিদিক
যেন পাতালপুরির ভিতর বসবাস,
অতি পরিচিত পৃথিবীটা নয়।
কলেমা জানো? কেউ একজন ব্যঙ্গোক্তি করল।
কেন এত রাতে কলেমা পড়বো কেন?
আজ ভোরে তোমার ফাঁসি
কেন কি করেছি আমি? কোন কারণে আমার ফাঁসি?
কারণ তুমি কবি!
মা জেগে উঠেছে থেমে থেমে কাশির শব্দ আসছে
গড়গড় শব্দে গাড়ি নড়ে উঠলো
ভোর হতে বেশী নাই দেরী।
 
১২-০৮-০৯
 
অনলাইনঃ ২২ আগস্ট, ২০০৯